আধুনিক মাসায়েল

স্বামী স্ত্রী একে অপরের কামরস বা বীর্য মুখে নেয়া

  Mahbub ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ , ১:০৪ পূর্বাহ্ণ প্রিন্ট সংস্করণ

জিজ্ঞাসাঃ সহবাসের সময় স্ত্রী হতে নির্গত স্রাব পেটে গেলে বা ইচ্ছাকৃভাবে গিলে ফেললে এটি জায়েয আছে বা হালাল কিনা? তদ্রূপ স্ত্রীও স্বামীর বীর্যারোহণ করতে পারবে? এ সম্পর্কে ইসলাম কী বলে?–নওরিন।

জবাব: কোরআন মজিদের একাধিক আয়াত ও বহু হাদিস দ্বারা একথা প্রমাণিত যে, কামরস স্রাব বীর্য; এগুলো নাপাক। আর নাপাক জিনিস খাওয়া নিঃসন্দেহে হারাম।

যেমন রাসূলুল্লাহ ﷺ আম্মার রাযি.-কে বলেন,
يَا عَمَّارُ إِنَّمَا يُغْسَلُ الثَّوْبُ مِنْ خَمْسٍ: مِنَ الْغَائِطِ وَالْبَوْلِ وَالْقَيْءِ وَالدَّمِ وَالْمَنِيِّ
‘হে আম্মার! নিশ্চয় ৫টি কারণে কাপড় ধৌত করতে হয়, যথা- ১) পায়খানা, ২) প্রশ্রাব, ৩) বমি, ৪) রক্ত, ৫) বীর্য। (সুনানে দারা কুতনী  ৪৫৮)
ফিকহের কিতাবে এসেছে,
أَنْ كُلَّ مَا يَخْرُجُ مِنْ بَدَنِ الْإِنْسَانِ مِمَّا يَجِبُ بِخُرُوجِهِ الْوُضُوءُ أَوْ الْغُسْلُ فَهُوَ نَجِسٌ، مِنْ الْبَوْلِ وَالْغَائِطِ وَالْوَدْيِ وَالْمَذْيِ وَالْمَنِيِّ، وَدَمِ الْحَيْضِ وَالنِّفَاسِ
‘নিশ্চয় যে সকল জিনিস মানুষের শরীর থেকে বের হলে অযু অথবা গোসল ওয়াজিব হয়ে যায় তা নাপাক। যেমন, পেশাব, পায়খানা, ওদী, মযী, বীর্য, হায়েয এবং নেফাসের রক্ত। (বাদাইয়িউস সানায়ী ১/৬০ আলমুহীতুল বুরহানী ১/৫০)
তাছাড়া প্রথমত, এটা বিকৃত যৌনাচার। দ্বিতীয়ত, এর মাধ্যমে সবচেয়ে সহজে এবং দ্রুত STD বা যৌন-সংক্রান্ত জীবাণু ছড়ায়। কারণ, সরাসরি পেটে যাচ্ছে। তারপর সেখান থেকে সরাসরি রক্তে।
والله اعلم بالصواب