আধুনিক মাসায়েল

স্ত্রী দাড়ী রাখা অপছন্দ করলে

  Mahbub ২৬ আগস্ট ২০২১ , ১:৫২ পূর্বাহ্ণ প্রিন্ট সংস্করণ

স্ত্রী দাড়ী রাখা ও টাখনুর নিচে জামা পরিধান করা পছন্দ না করলে স্বামীর করণীয় কী?

প্রশ্ন

From: akramul huq
বিষয়ঃ Keeping Beard

What is the law for keeping beard…is it sin if I do not keep it?
Suddenly (by 2 months) I am keeping beard but my wife does not like it….starting bad relation….what can I do now?
I also wearing short (above Taklu) long-pant…what is the law…is it sin if I do not continue it?
Plz help me by answering the above questions. Thank You

উত্তর

بسم الله الرحمن الرحيم

মুসলমানদের দাড়ী রাখা ওয়াজিব। এটা মুসলমানিত্বের প্রতীক। এটা সমস্ত নবীদের সুন্নাত। স্ত্রীকে খুশি করতে এ ওয়াজিব বিধান ছেড়ে দিলে কবীরা গোনাহ হবে।

যদি তাকে বুঝানোর পরও না মানে, তাহলে আপনার বিবি ইসলামী জীবন বিধান পছন্দ না করার কারণে তাকে ছেড়ে দিতে পারেন। কিন্তু দাড়ি রাখা ছাড়া যাবে না।

আর টাখনুর উপরে জামা পরিধান করা পুরুষের জন্য আবশ্যক। কারণ, হাদীসে এ বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা আসছে যে, টাখনুর নিচে যে জামা থাকে, তা জাহান্নামে যাবে।

عن ابن عمر  : عن النبي صلى الله عليه و سلم قال ( خالفوا المشركين وفروااللحى وأحفوا الشوارب  . وكان ابن عمر إذا حج أو اعتمر قبض على لحيته فما فضل أخذه

হযরত ইবনে ওমর রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন-তোমরা মুশরিকদের বিরোধীতা কর। দাড়ি লম্বা কর। আর গোঁফকে খাট কর।

আর ইবনে ওমর রাঃ যখন হজ্ব বা ওমরা করতেন, তখন তিনি তার দাড়িকে মুঠ করে ধরতেন, তারপর অতিরিক্ত অংশ কেটে ফেলতেন। {সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৫৫৫৩}

عَنْ عَلِيٍّ، عَنِ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ لَا طَاعَةَ لِبَشَرٍ فِي مَعْصِيَةِ اللهِ

হযরত আলী রাঃ থেকে বর্নিত। রাসূ সাঃ ইরশাদ করেছেন, আল্লাহর নাফরমানীর করে কোন মানুষের আনুগত্য করা জায়েজ নয়। {মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং-১০৬৫}

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ، عَنِ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ: «مَا أَسْفَلَ مِنَ الكَعْبَيْنِ مِنَ الإِزَارِ فَفِي النَّارِ»

হযরত আবূ হুরায়রা রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসূল সাঃ ইরশাদ করেছেন, টাখনুর নিচের যে অংশ পায়জামা বা লুঙ্গি দ্বারা ঢাকা থাকে তা জাহান্নামে যাবে। {বুখারী, হাদীস নং-৫৭৮৭, ৫৪৫০}

ولا يجب على الزوج تطليق الفاجرة ولا عليها تسريح الفاجر، إلا إذا خافا أن لا يقيما حدود الله فلا بأس أن يتفرقا (الدر المختار مع رد المحتار-9/611)

وأما الطلاق… سببه الحاجة إلى الخلاص عند تباين الأخلاق وعروض البغضاء الموجبة عدم إقامة حدود الله تعالى (رد المحتار-4/428)

وأما محاسينه فالتخلص به من المكاره الدينية، والدنيوية (البحر الرائق-3/415)

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী

পরিচালক -তা’লীমুল ইসলাম ইনস্টিটিউট এন্ড রিসার্চ সেন্টার ঢাকা।