1. qawmivoiceb@gmail.com : Mahbub :
মোবাইলে বিয়ে! | কওমী ভয়েস
সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

মোবাইলে বিয়ে!

মুফতী মাহবুব
  • আপডেট সময়: বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৪০ জন দেখা

শরীয়তে ইসলামিয়ার দৃষ্টিতে বিবাহ সহীহ হওয়ার জন্য কয়েকটি শর্ত রয়েছে। যেমন-

এক. পাত্র ও পাত্রীকে কিংবা তাদের প্রতিনিধিকে ইজাব তথা প্রস্তাবনা ও কবুল বলতে হয়।

দুই. উক্ত ইজাব ও কবুলটি বলতে হয় দু’জন আযাদ প্রাপ্ত বয়স্ক বিবেকবান দুই জন মুসলিম স্বাক্ষের সামনে পাত্র বা পাত্রী প্রস্তাব দিবে আর অপরপক্ষে পাত্র বা পাত্রী তা কবুল করবে।

তিন. ইজাব ও কবুলটি উভয় সাক্ষিগণ স্বকর্ণে উভয়ের কথা সুষ্পষ্টভাবে শুনবে।

উলেখ্য, আর শরয়ী এ শর্তাবলী পরিপূর্ণভাবে টেলিফোনে পাওয়া সম্ভব নয়। তাই টেলিফোন বা মোবাইলে বিবাহ করা জায়েজ নয়। -ফাতওয়ায় উসমানী-২/৩০৪,৩০৫

তবে টেলিফোন বা মোবাইলে বিবাহ করার সঠিক পদ্ধতি হল-উভয় পক্ষ থেকে এক পক্ষ অপরপক্ষ যেখানে থাকে সেখানের কোন ব্যক্তিকে উকীল বানাবে। তারপর সে উকীল দু’জন সাক্ষীর সামনে বিবাহ করিয়ে দিবে। তাহলে বিবাহ শুদ্ধ হয়ে যাবে। এছাড়া সরাসরি মোবাইলে বা টেলিফোনে প্রস্তাব ও কবুল করার দ্বারা বিবাহ সহীহ হবে না।

فى الدر المختار- ( و ) شرط ( حضور ) شاهدين ( حرين ) أو حر وحرتين ( مكلفين سامعين قولهما معا ) (الدر المختار ، كتاب النكاح،-3/9)

অনুবাদ-বিবাহ সহীহ হওয়ার শর্ত হল শরীয়তের মুকাল্লাফ [যাদের উপর শরীয়তের বিধান আরোপিত হয়] এমন দুইজন আযাদ পুরুষ সাক্ষি বা একজন আযাদ পুরুষ ও দুইজন মহিলা সাক্ষি হতে হবে, যারা প্রস্তাবনা ও কবুল  বলার উভয় বক্তব্য স্বকর্ণে উপস্থিত থেকে শুনতে পায়। -আদ দুররুল মুখতার-৩/৯, ফাতওয়ায়ে হিন্দিয়া-১/২৬৮}

আরও দেখুন- ফাতাওয়া হিন্দিয়া ১/২৯৪, ১/৩৬৯; আদ্দুররুল মুখতার ৩/৫১৬; ফাতাওয়া তাতারখানিয়া ৪/৩৬

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এজাতীয় আরও পড়ুন
©২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত| এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।
ডিজাইন কওমী ভয়েস